একান্তর কোণ কাকে বলে? প্রকার ও কি কি? বৈশিষ্ট্য

দুইটি সমান্তরাল সরলরেখাকে অপর একটি ছেদক রেখা ছেদ করলে যে চার জোড়া বা আটটি কোণ উৎপন্ন হয়, তাদের মধ্যে ভিন্ন শীর্ষবিন্দু বিশিষ্ট যেসব কোণ-জোড়া ছেদকের বিপরীত পাশে অবস্থান করে এবং কোণ দুইটির উভয়েই অন্তঃস্থ কোণ অথবা উভয়েই বহিঃস্থ কোণ হয়, সেই কোণ জোড়াকে পরস্পর একান্তর কোণ বলে।

একান্তর কোণ কাকে বলে

উপরের চিত্রে একান্তর কোণগুলির জোড়া হল:

∠3 এবং ∠5
∠4 এবং ∠6
∠1 এবং ∠7
∠2 এবং ∠8


একান্তর কোণের প্রকারভেদ

একান্তর কোণ দুই প্রকার-

  1. অন্তঃস্থ একান্তর কোণ
  2. বহিঃস্থ একান্তর কোণ

অন্তঃস্থ একান্তর কোণ

একান্তর কোণের প্রকারভেদ

উভয় রেখার অভ্যন্তরীণ অঞ্চলে অবস্থিত একান্তর কোণগুলিকে অন্তঃস্থ একান্তর কোণ বলে ।

উপরের চিত্রে, দুটি জোড়া অন্তঃস্থ একান্তর কোণ হল ∠3 এবং ∠5 এবং ∠4 এবং ∠6

বহিঃস্থ একান্তর কোণ

একান্তর কোণের প্রকারভেদ

উভয় রেখার বাহ্যিক অঞ্চলে অবস্থিত একান্তর কোণগুলিকে বহিঃস্থ একান্তর কোণ বলে ।

দুই জোড়া বহিঃস্থ একান্তর কোণ হল ∠1 এবং ∠7, এবং ∠2 এবং ∠8।


একান্তর কোণের বৈশিষ্ট্য

  • একান্তর কোণদ্বয়ের শীর্ষবিন্দু ভিন্ন হয়।
  • একান্তর কোণ দুইটি পরস্পর সমান হলে ছেদক রেখা ব্যতীত অপর রেখাদ্বয় পরস্পর সমান্তরাল হয়।
  • ছেদক রেখাটি প্রত্যেকটি সরলরেখার উপর লম্ব হলে একান্তর কোণদ্বয়ের প্রত্যেকটি কোণের পরিমাপ ৯০ ডিগ্রি বা এক সমকোণ হয়।
  • একান্তর কোণদুইটি একই সমতল বিশিষ্ট হয় অর্থাৎ, তারা একই সমতলে অবস্থান করে।
  • ছেদক রেখা ব্যতীত অপর রেখাদ্বয় পরস্পর সমান্তরাল হলে একান্তর কোণ দুইটি পরস্পর সমান হয়।
  • যেকোনো একজোড়া একান্তর কোণের একটি কোণ অপর কোণের সমান হলে, প্রত্যেক জোড়ার একটি কোণ অপর কোণের সমান হয়।
  • একান্তর কোণদ্বয়ের একটি কোণ বহিঃস্থ হলে অপর কোণটিও বহিঃস্থ কোণ হয়।
  • একান্তর কোণদ্বয় ছেদক রেখার বিপরীত পার্শ্বে অবস্থান করে।
  • একান্তর কোণদ্বয় একই সমতলে অবস্থান করে।
  • একান্তর কোণের অভ্যন্তরস্থ বিন্দু কখনও সাধারণ হতে পারে না।
  • একান্তর কোণদ্বয়ের একটি কোণ অন্তঃস্থ হলে অপর কোণটিও অন্তঃস্থ কোণ হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.