গ্রাফিক্স ডিজাইন কি ? কোথায় শিখবেন ? চাকরি এর চাহিদা ও ভবিষ্যৎ?

গ্রাফিক্স ডিজাইন

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? (What is graphics design): গ্রাফিক্স ডিজাইন হলো কোনো বিষয়বস্তু কে সংক্ষিপ্ত লেখা , ফটো, স্টাইলের দারা বোঝানই হলো গ্রফিস্ক ডিজাইন।

বর্তমান দিনে গ্রাফিক্স ডিজাইন দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে তাই আপনিও খুব সহজেই নিজের ভবিষ্যত্ কে সুন্দর ভাবে গড়ে তুলতে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর চাকরি খুব একটা মন্দ্দ নয়।


গ্রাফিক্স ডিজাইন কোথায় ব্যাবহার করা হয়

আগেকার সময়ে বিজ্ঞাপন দেওয়া হতো রেডিও, খবরের কাগজ এবং টেলিভিশন এর মাধ্যমে।

রেডিওতে বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য কোনরকম গ্রাফিক্স ডিজাইন এর দরকার হতই না। শুধুমাত্র ভয়েস আর্টিস্ট এর দ্বারাই বিজ্ঞাপন সম্পূর্ণ হতো।

খবরের কাগজ এবং টেলিভিশন এও খুবই কম গ্রাফিক্স ডিজাইন এর বিজ্ঞাপন দেখানো হতো।

কিন্তুু বর্তমানে ছোটো বড়ো সবই কোম্পানি ডিজিটাল মার্কেটিং এর দিকে ঝুঁকছে। আর ডিজিটাল মার্কেটিং গ্রাফিক্স ছাড়া অসম্পূর্ণ প্রায়।

আরো জানুন : ডিজিটাল মার্কেটিং কি

যেমন ধরুন amazon.in এ প্রোডাক্ট সেল দিচ্ছে তাহলে ওই অফার এর জন্য কম্পিউটার এর দ্বারা যে পোস্টার বানানো হয়।

এবং ওই পোস্টার টি আমাজন ফেসবুক থেকে সমস্ত জায়গায় প্রচার করে। আর ওই পোস্টার দেখেই গ্রাহক সহজেই বুঝে যাবে আসলে সেল দিচ্ছে।

শুধু তাই নয় ওই পোস্টার এর ডিজাইন গ্রাহক কে আকর্ষিত করবে amazon থেকে জিনিসপত্র কেনার জন্য।

এছাড়াও অসংখ্য জায়গাতে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ব্যবহার করা হয়। যেমন বিস্কিটের প্যাকেট এর উপর , চকলেটের প্যাকেজ ।

আমাদের আশে পাশে বেশিরভাগ জিনিসের অপর গ্রাফিক্স ডিজাইনিং করা হয়ে থাকে।

আরো কয়েকটি উদাহরণ হলো:-

যেকোনো ধরনের পোস্টার বানানো এগুলোতে গ্রাফিক্স ডিজাইন করা হয়।


যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন করা হয় তাহলে কি হবে?

যদি কোন প্রোডাক্টের প্যাকেজে গ্রাফিক্স ডিজাইন না করা হয় তাহলে প্রোডাক্টটি কাস্টমারের কাছে খুব একটা মন কেড়ে নিতে পারবে না।

এতে কোম্পানির কম বিক্রি হতে পারে শুধু তাই নয় কোম্পানির ব্র্যান্ডের নামও খারাপ হতে পারে।

সুন্দরতা সবারই মন কেড়ে নেয় তাই প্রোডাক্টের প্যাকেজ যদি সুন্দর না হয় তাহলে সে প্রডাক্ট বিক্রি হওয়াটা খুব কঠিন।

আর প্যাকেজ ভালো করতে গেলে অবশ্যই সুন্দর গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রয়োজন।

ভালো মানের কম্পানি তাদের ব্র্যান্ডের জন্য সুন্দর সুন্দর প্যাকেজ করে যাতে কাস্টমার এর প্রোডাক্ট টা দেখতে সুন্দর লাগে।

তাই কোনো রকম বিজ্ঞাপনের জন্য অথবা প্রডাক্ট প্যাকেজিং এর জন্য সুন্দর গ্রাফিক্স ডিজাইন কাস্টমারকে আকর্ষিত করে এবং কোম্পানির এজন্য খুবই লাভজনক এটি।

এসব কারণের জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন খুবই প্রয়োজনীয় বর্তমান দিনে।


গ্রাফিক্স ডিজাইনের বর্তমান চাহিদা কেমন

বর্তমানে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজের চাহিদা যথেষ্ট পরিমান আছে। গ্রাফিক্স ডিজাইন প্রায় সমস্ত কোম্পানির দরকার হয়।

উদাহরণ হিসেবে কোন কোম্পানি যদি কোম্পানির প্রচার করতে চায় তাহলে কোম্পানিকে পোস্টার বানাতে হবে।

পোস্টারটি ডিজিটাল মার্কেটিং করা হয় এবং এই পোস্টারটি অনলাইন অফলাইন দুটো জায়গাতেই প্রচার করা সম্ভব।

এইসব কারণে গ্রাফিক্স ডিজাইনের চাকরি বর্তমান মার্কেটে সহজেই পাওয়া যেতে পারে যদি আপনার মধ্যে সঠিক দক্ষতা থাকে।

বর্তমানে আপনি ফেসবুক, ইন্সট্রাগ্রাম, টুইটার কিংবা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে যদি কোন অ্যাডভার্টাইজমেন্ট দেখতে পান প্রায় সবই গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর দ্বারা তৈরি।


গ্রাফিক্স ডিজাইন এর ভবিষ্যৎ

দিনের-পর-দিন কোম্পানি বেশি পরিমাণ ডিজিটালি প্রচার করছে অর্থাৎ অনলাইনে প্রচার করছে।

সেই কারণেই অনলাইনে প্রচার করার জন্য বেশি পরিমাণ গ্রাফিক্স ডিজাইনার এর দরকার পড়বে।

আপনার মধ্যে যদি সঠিক দক্ষতা থাকে তাহলে আপনি সহজেই এর লাভ উঠাতে পারবেন।

বর্তমানে সবকিছুই প্রায় অনলাইনে হয়ে গেছে এবং ধীরে ধীরে আরও বেশি হচ্ছে। তাইতো অনলাইনে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং খুবই দরকার গ্রাহককে আকৃষ্ট করার জন্য।

এই সুযোগে আপনিও গ্রাফিক্স ডিজাইনিং শিখে ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে পারেন।


গ্রাফিক্স ডিজাইন কোথায় শিখবেন?

আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার জন্য কাছের কোন ইনস্টিটিউট অথবা সেন্টার থেকে শিখে নিতে পারেন।

এছাড়া আপনি অনলাইনে ও শিখে নিতে পারেন অনলাইনে আপনি ঘরে বসে ইন্টারনেট ব্যবহার করে ভিডিওর মাধ্যমে শিখতে পারেন।

অনলাইনে শেখার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট আছে তার মধ্যে অন্যতম একটি ওয়েবসাইট এর নাম হলো ইউডেমি (udemy)।

ইউডেমি তে আপনি সহজেই কম খরচে গ্রাফিক্স ডিজাইনিং শিখে নিতে পারেন।

গ্রাফিক্স ডিজাইনের অনেক খবর udemy তে পাওয়া যায়। এর মধ্যে অন্যতম একটি কোর্স সাজেস্ট করছি।

udemy থেকে গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখার জন্য এখানে ক্লিক করুন।


গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা সহজ না কঠিন?

গ্রাফিক্স ডিজাইন শেখা সহজ কিংবা কঠিন কোনোটাই নয়। আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনার হিসেবে কাজ করেন তাহলে আপনাকে প্রতিদিন নতুন নতুন কিছু বানাতে হবে।

একই জিনিস সবসময় কিম্বা প্রতিদিন বানালে কাস্টমারের কাছে একঘেয়েমি থেকে যাবে এবং কাস্টমার ওদের প্রতি আকৃষ্ট হবে না।

তাই আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনার হতে চান তাহলে আপনার মধ্যে নতুন নতুন ডিজাইন করার মত চিন্তাভাবনা ও দক্ষতা চাই। যদি আপনি নতুন নতুন ডিজাইন বানাতে পছন্দ করেন না তাহলে গ্রাফিক্স ডিজাইন জব আপনার জন্য নয়.

তাহলে আপনার পছন্দের কাজ খোঁজার চেষ্টা করুন কারণ এটা আগে থেকে জেনে নেওয়া উচিত যে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কাজে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কম্পিউটার এর সামনে বসে ডিজাইন বানাতে হবে।

যদি আপনি বেশি সময় কম্পিউটার এর সামনে বসে থাকতে পছন্দ না করেন । তাহলে চাকরি পেলেও আপনার হয়তো ভালো নাও লাগতে পারে।

শুধু তাই নয় নতুন কিছু বানাতে হবে। যদি এটা আপনার স্বপ্নের চাকরি মনে করেন কম্পিউটার এ বসে ডিজাইন করা তাহলে এটা আপনার জন্য খুবই ভালো।


গ্রাফিক্স ডিজাইনিং শিখে চাকরি কিভাবে পাবেন?

চাকরি পাওয়ার জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন কোম্পানি তে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারেন।

অথবা কাছের কোনো জব কনসালট্যান্ট এর সঙ্গে যোগাযগ করতে পারেন।

এছাড়া বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসিতে এ যেখানে জব পোস্ট করা হয় । ওই সব website আপনার CV আপলোড করে জব পেতে পারেন। ভারতে naukri.com ওয়েসবিতে এ CV আপলোড করতে পারেন। এখানে প্রতিদিন অসংখ্য job পোস্ট করা হয়।

বর্তমানে সোসিয়াল মিডিয়াতে বিভিন্ন জব গ্রুপ আছে। যেমন ফেসবুক ওখানেও জবের অনেক পোস্ট দেখতে পাবেন। গ্রাফিক্স ডিজাইন জব এর জন্য গ্রাফিক্স ডিজাইন গ্রুপ কিম্বা পেজ এ যুক্ত হলে আপনি ওখানে জব সম্বন্ধিত অনেক পোস্ট করতে পারেন।


গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য কোন কোন সফটওয়্যার ব্যবহার করা হয়?

অনেক সফটওয়্যার আছে যার গ্রাফিক্স ডিজাইনিং করতে পারবেন এর মধ্যে অন্যতম হলো Adobe ফটোশপ, এছাড়াও অনেক সফটওয়্যার আছে যার দ্বারা গ্রাফিক্স ডিসাইন করতে পারবেন।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *