জিমেইল কি?, ব্যবহার, কিভাবে Gmail অ্যাকাউন্ট খুলবেন?

জিমেইল একাউন্ট খুলবেন কিভাবে

আমাদের প্রত্যেকেরই প্রয়োজন হয় Gmail account এর, কারণ স্মার্টফোনে জিমেইল অ্যাকাউন্ট অবশ্যই দরকার হয় কোনরকম অ্যাপ ডাউনলোড করতে গেলে প্লেস্টোর থেকে।

এছাড়াও বিভিন্ন কাজের জন্য জিমেল অ্যাকাউন্ট এর দরকার হয়। যা আমরা ওই আর্টিকেল টি পড়ে জানবো।

Gmail account কি?

Gmail হলো একটি ইমেইল (E-mail) পরিষেবা যা গুগল ( google) দারা পরিচালিত।

সহজভাবে বলতে গেলে , এটি একটি ইমেইল (email) account, যা গুগল কোম্পানি তৈরি করেছে। এবং নাম দিয়েছে Gmail ।

অন্যান্য email এর মত , যেমন yahoo কোম্পানির yahoo mail আছে। আরো অনেক জায়গা থেকে email বানানো যায় যেমন hotmail.com ইত্যাদি ইত্যাদি।

  • যেমন, yahoo এর ইমেইল account এর শেষে @yahoo.com ব্যবহার করে থাকি।
  • Hotmail এর ইমেইল account এর শেষে @hotmail.com ব্যবহার করা হয়।
  • তেমটি, Gmail থেকে তৈরি করা ইমেইল account এর শেষে @gmail.com দেখতে পাবেন।

বর্তমানে, অনেকেই ইমেইল শব্দটি ব্যবহার করার পরিবর্তে অনেকেই বলেন, “জিমেইল এর মাধ্যমে ফাইল ( file) টি পাঠিয়ে দেবেন”। কারণ এটি এখন খুবই প্রচলিত।

কেনো Gmail account এর প্রয়োজন?

আমরা যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করি , আমাদের প্রত্যেকেরই Gmail account এর প্রয়োজন পড়ে।

যেহেতু অ্যান্ড্রয়েড (android) google এর দ্বারা বানানো, তাই অ্যান্ড্রয়েড (android) ফোন ব্যবহার করতে গেলে Gmail এর প্রয়োজন। যেমন gmail account ব্যবহার করেই android মোবাইলের প্লেস্টোর (Playstore) টি ব্যবহার করতে পারবেন।

এছাড়াও google এর বিভিন্ন প্রোডাক্ট (product) আছে, যা ব্যবহার করতে গেলে gmail account এর প্রয়োজন।

যেখানে যেখানে gmail এর প্রয়োজন পড়ে সেগুলি হলো:

  • প্লেস্টোর (playstore)
  • গুগল ড্রাইভ(Google drive)
  • গুগল ফটো (Google Photo)
  • গুগল ডক (Google Doc)
  • ইউটিউব (YouTube)
  • গুগল অ্যাকাউন্ট (Google Account)
  • ইত্যাদি ইত্যাদি

কিভাবে জিমেইল অ্যাকাউন্ট বানাবেন ?

জীমেল account বানানোর জন্য, বর্তমানে ফোন নাম্বারের দরকার পড়ে না।

শুধু ইন্টারনেট কানেকশন আর মোবাইল নাহলে কম্পিউটারে অথবা ল্যাপটপ , ট্যাবলেট যেকোনো ডিভাইস ব্যবহার করে gmail account বানাতে পারবেন।

স্টেপ ১:

ব্রাউজারে Gmail sign up লিখে সার্চ (search) করুন।এবং প্রথমে যে লিংকটি আসবে ওটাতে ক্লিক করুন।

অথবা এখানে ক্লিক করুন

জিমেইল একাউন্ট বানানো

স্টেপ ২: আপনার নাম , পদবী, এবং পাসওয়ার্ড লিখুন।

ওই ফাঁকা জায়গাতে আপনার নাম , পদবী ও ইমেল আইডি টি পছন্দ করতে হবে। কিভাবে লিখবেন তার বর্ণনা নিচে দিলাম।
মনে রাখবেন পছন্দমত gmail আইডি লেখার জায়গাতে , যেটি লিখবেন ওটাই হবে আপনার জিমেইল আইডি।

ধরুন আপনার নাম যদি Elon mask হয়। তাহলে কিভাবে লিখবেন।

user name এর জায়গায় আপনার নামটি লিখবেন। যদি আপনার ওই নামে অন্য কারো gmail আইডি না থাকে। তাহলে ওই নামে gmail আইডি টি বানানো হয়ে যাবে।
যদি আপনার নামে ইতিমধ্যেই email-id অন্য কেউ খুলেছে তাহলে আপনাকে নতুন কোনো আইডি লিখতে হবে অথবা নিচে available লেখাটির পাশে থাকা আইডি গুলি থেকে পছন্দ করতে হবে যে কোন একটা।

নতুন কোন পাসওয়ার্ড লিখতে হবে এবং দ্বিতীয়বার ওই পাসওয়ার্ডটি লিখতে হবে নিচের Confirm password এর জায়গায়।

লেখার পরে next button এ ক্লিক করুন।

স্টেপ ৩:

এখানে আপনাকে নিজেই জন্ম তারিখটি লিখতে হবে। এবং ফোন নম্বর কিম্বা অন্য কোনো ইমেইল আইডিও দিতে পারেন অথবা নাও দিতে পারেন।

NOTE: ইমেইল আইডি অথবা ফোন নম্বর না লিখলেও চলবে। কিন্তূ ফোন নম্বর অথবা কোনো ইমেইল আইডি দিয়ে রাখলে, পরবর্তীকালে যদি পাসওয়ার্ড ভুলে যান তাহলে ওই ফোন নম্বর অথবা ইমেইল আইডির সাহায্যে পূর্ণরায় accountটি খুলতে পারবেন।

স্টেপ ৪:

ব্যস খুলে গেলো আপনার Gmail অ্যাকাউন্ট।

সত্যি কথা বলতে Gmail অ্যাকাউন্ট খোলা খুবই সহজ।


Gmail অ্যাকাউন্ট ও Google অ্যাকাউন্ট কি একই?

জিমেইল অ্যাকাউন্ট টি গুগল কোম্পানির দ্বারা বানানো একটি ইমেইল পরিষেবা।
তাই Gmail পরিষেবা ব্যবহার করতে গেলে আপনাকে Gmail অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে।

আর গুগল অ্যাকাউন্ট হলো, গুগল কোম্পানির বিভিন্ন পরিষেবা ব্যবহার করার জন্য অ্যাকাউন্ট। গুগলের পরিষেবা গুলি হলো : Gmail, Google drive, Google Photo, Google Map ইত্যাদি পরিষেবা গুলি ব্যবহার করতে পারবেন।

Gmail অ্যাকাউন্ট খুললে গুগল অ্যাকাউন্ট এমনিতেই খুলে যাবে।

এবং গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলেট করে দিলে, গুগলের সমস্ত পরিষেবা যেমন Gmail account থেকে শুরু করে গুগল ড্রাইভ , Google ফটো সবই ডিলেট হয়ে যাবে।

আপনি চাইলে, গুগল অ্যাকাউন্ট এ গিয়ে শুধুমাত্র Gmail অ্যাকাউন্ট, অথবা অন্য কোনো নির্দিষ্ট পরিষেবা কে বন্ধ করতে পারবেন ।

তাই সারমর্ম এটাই যে, Gmail হলো একটি ইমেইল পরিষেবা যা Google বানিয়েছে।
Gmail অ্যাকাউন্ট খোলা মানে হলো গুগল অ্যাকাউন্ট খুলে গেলো , ওই গুগল অ্যাকাউন্টটি ব্যবহার করে সমস্ত পরিষেবা কে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

যেমন, পাসওয়ার্ড পরিবর্তন থেকে নাম পরিবর্তন, ব্যাকআপ নেওয়া, ইত্যাদি গুগল account এর ভেতরে গিয়ে করতে পারবেন।

অন্য ইমেইল দিয়ে গুগল অ্যাকাউন্ট খোলা যায় কি ?

অন্য কোনো ইমেইল অ্যাকাউন্ট যেমন yahoo , Hotmail ইত্যাদি ব্যবহার করে গুগল অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন , এবং গুগলের ওয়েব পরিষেবা গুলি ব্যবহার করতে পারবেন।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *