টেলিমেডিসিন কি? সুবিধা ও অসুবিধা

যখন আমরা কোন শারিরীক সমস্যায় পড়ি তখন আমরা ডাক্তারের কাছে গিয়ে শরীরের সমস্ত সমস্যার কথা বলি এবং ডাক্তার আমাদের শারীরিক সমস্যাগুলি শোনার পরে প্রেসক্রিপশন লিখে দেন এবং আমরা ঐ প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ফার্মেসির দোকানে গিয়ে ওষুধগুলি কিনে খাই। এভাবেই আমরা শারীরিকভাবে সুস্থ হয়ে ওঠি।

কিন্তু সরাসরি ডাক্তারের কাছে যাওয়ার অনেক সমস্যা থাকে যেমন আমাদের শারীরিক সমস্যা অর্থাৎ শারীরিক অক্ষমতা অথবা দূরত্ব অথবা বিভিন্ন কারণ হয়ে থাকতে পারে।

এই সমস্ত সমস্যার সমাধানের জন্য টেলিমেডিসিনের ব্যাবহার করা হচ্ছে বর্তমানে। এবং ভবিষ্যতের জন্য টেলিমেডিসিন আমাদের জন্য লাভজনক হবে।

টেলিমেডিসিন হল আপনি আপনার শারীরিক সমস্যাগুলিকে ডাক্তারের সঙ্গে আলোচনা করতে পারবেন ফোন কলের মাধ্যমে অথবা ভিডিও কল চ্যাটিং ইত্যাদি এর মাধ্যমে আপনি ঘরে বসেই ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলতে পারবেন এবং ডাক্তারবাবুকে আপনার সমস্ত সমস্যার বিষয় জানাতে পারবেন এবং ডাক্তারবাবুর ওই সমস্যার সমাধান হিসেবে প্রেসক্রিপশন ইন্টারনেটের মাধ্যমেই আপনাকে তৎক্ষণাৎ দিয়ে দেবেন। এর পরে আপনি ওই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী পাশের দোকান থেকে মেডিসিন কিনে খেতে পারেন অথবা ওই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী অনলাইনের মাধ্যমে মেডিসিন অর্ডার করতেও পারবেন।

ডাক্তারের যদি মনে হয় কোন রকমের ছোটখাটো টেস্ট করাতে হবে তাহলে ওই ছোটখাটো টেস্টের যন্ত্রপাতি আপনি বাড়িতেই রাখতে পারেন অথবা বাইরের ল্যাবরেটরি থেকে টেস্ট করতে পারেন এবং ওই রিপোর্ট আবার ইন্টারনেট অথবা অডিও কলের মাধ্যমে ডাক্তার কে শেয়ার করতে পারেন।

টেলিমেডিসিনের সুবিধা গুলি হল

  • প্রচুর সময় নষ্ট হয়না। নির্দিষ্ট সময়ে ডাক্তার বাবুর সঙ্গে কথা বলতে পারেন বাড়িতে বসেই।
  • অনেক দূর যাতায়াত করতে হয়না।
  • খরচ অনেকটা কমে যায়।
  • শারীরিক সমস্যায় ডাক্তারের কাছে যাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি।
  • এছাড়াও ডাক্তার দেখাতে গেলে ওখানে অনেক রুগী এর সামনে বিভিন্ন ভাইরাস এর থেকে মুক্তি পাওয়া যায় ।

টেলিমেডিসিনের অসুবিধা গুলি হলো:

  • ডাক্তার বাবু আপনাকে ফিজিক্যালি হাত দিয়ে স্পর্শ করে দেখতে পারেনা। হাত দিয়ে ডাক্তার বাবু কিছু দেখলে সেটা অনকে বেশি সঠিক ভাবে মেডিসিন দেওয়া সম্ভব হতে পারে। যদিও অভিজ্ঞ ডাক্তার দুর থেকেই ভিডিও কলের মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যা ও ভিডিও দেখে বুঝতে পারেন সমস্যা গুলি।
  • সমস্ত রকমের শরীরকে চিকিৎসা টেলিমেডিসিন এর মাধ্যমে সম্ভব হয়না। কিছু কিছু ক্ষেত্রে হসপিটাল যাওয়ার প্রয়োজনও পড়ে।

সহজ ভাষায় টেলিমেডিসিন কি?

ডাক্তারের কাছে সরাসরি না গিয়ে ভিডিও কল , ভয়েস কল অথবা চ্যাট এর মাধ্যমে শারীরিক সমস্যাগুলি জানানো এবং ডাক্তার বাবু ওই সমস্যাগুলি বোঝার পর, অনলাইনেই প্রেসক্রিপশন দেবেন। এবং ওই প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী ফার্মেসি থেকে মেডিসিন কিনে খেয়ে শারীরিক সমস্যা সমাধানকেই, টেলিমেডিসিন বলা হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.