তাপমাত্রা কাকে বলে? উদাহরণ, চিহ্ন, পরিমাপ, স্কেল, সেলসিয়াস, ফারেনহাইট, কেলভিন স্কেল

তাপমাত্রা হল কোনো বস্তুর তাপীয় অবস্থা যা নির্ধারন করে, কোনো বস্তুর সংস্পর্শে এলে তাপ গ্রহণ করবে নাকি তাপ বর্জন করবে ।

তাপমাত্রা এই শব্দটি শুনেই বুঝতে পারছেন যে এটি হল তাপের মাত্রা । অর্থাৎ কোনো বস্তুর মধ্যে কি পরিমাণ তাপ আছে একেই তাপমাত্রা বা উষ্ণতা বলা হয়।

ধরুন, ০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার একটুকরো বরফ এবং ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রার একগ্লাস পানি । দুটো বস্তুর মধ্যের তাপমাত্রা ঐ বস্তুর মধ্যের তাপের মাত্রা বা তীব্রতা নির্দেশ করে ।

উদাহরণ:

তাপমাত্রা বা উষ্ণতা হচ্ছে কোনো বস্তু কতটা গরম (উষ্ণ) বা ঠান্ডা (শীতল), তার পরিমাপ।

১ গ্লাস পানিকে যদি তাপ দেওয়া হয় তাহলে ঐ পানির মধ্যে তাপের মাত্রা বৃদ্ধি পাবে । অর্থাৎ কোনো বস্তুকে তাপ দিলে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে ।

ধরুন, ২ টি লোহার দন্ড আছে । ১ টি লোহার তাপমাত্রা হল ৫০°C এবং অপরটির তাপমাত্রা হল ২৫°C ।

এখন যদি ঐ দুটি লোহাকে একসঙ্গে রেখে দেওয়া হয় তাহলে ৫০°C তাপমাত্রার লোহাটি তাপ বর্জন করবে ২৫°C লোহার দিকে । এবং ২৫ °C লোহাটি তাপ গ্রহণ করবে ৫০°C তাপমাত্রার লোহার থেকে । এই কারণেই সংজ্ঞাতে বলা হয়েছে । তাপমাত্রা হল বস্তুর তাপীয় অবস্থা যা নির্ধারন করে ঐ বস্তু অন্য বস্তুর সংস্পর্শে এলে তাপ গ্রহণ করবে নাকি তাপ বর্জন করবে ।

তাপমাত্রার চিহ্ন

তাপমাত্রার প্রতীক হল T.

তাপমাত্রা পরিমাপ

একটি থার্মোমিটার এমন একটি সরঞ্জাম যা তাপমাত্রা পরিমাপ করে — কোন কিছু কতটা গরম বা ঠান্ডা।

একটি পদার্থ বা বস্তুতে উপস্থিত তাপের মাত্রা বা তীব্রতা, বিশেষত একটি তুলনামূলক স্কেল অনুসারে প্রকাশ করা এবং একটি থার্মোমিটার দ্বারা দেখানো বা স্পর্শ দ্বারা অনুভূত।

Thermo(তাপ) এবং meter(পরিমাপক যন্ত্র) দিয়ে তৈরি, থার্মোমিটার শব্দের অর্থ বেশ সোজা। থার্মোমিটারগুলি সেলসিয়াস, ফারেনহাইট অথবা কেলভিন স্কেল সিস্টেম অনুসারে ডিগ্রীতে তাপমাত্রা পরিমাপ করে।

তাপমাত্রা স্কেল

থার্মোমিটার পরিমাপের সু-সংজ্ঞায়িত স্কেল অনুযায়ী তাপমাত্রা পরিমাপ করে।

তিনটি সবচেয়ে সাধারণ তাপমাত্রা স্কেল হল:

  1. সেলসিয়াস স্কেল (°C): সেলসিয়াস স্কেলে পানির হিমাঙ্ক 0ºC এবং পানির স্ফুটনাঙ্ক 100ºC। এক ডিগ্রি সেলসিয়াসের তাপমাত্রার পার্থক্য এক ডিগ্রি ফারেনহাইটের তাপমাত্রার পার্থক্যের চেয়ে বেশি। সেলসিয়াস স্কেলে এক ডিগ্রি ফারেনহাইট স্কেলে 180/100=9/5 এক ডিগ্রির চেয়ে 1.8 গুণ বড়।
  2. ফারেনহাইট স্কেল (°F): ফারেনহাইট স্কেলে, পানির হিমাঙ্ক 32ºF এবং স্ফুটনাঙ্ক 212ºF-এ।
  3. কেলভিন স্কেল (K): এটি একটি নিখুঁত তাপমাত্রা স্কেল যা সর্বনিম্ন সম্ভাব্য তাপমাত্রায় 0 কে, যাকে পরম শূন্য বলা হয়। এই স্কেলে জলের হিমাঙ্ক এবং স্ফুটনাঙ্ক যথাক্রমে 273.15 K এবং 373.15 K। অন্যান্য তাপমাত্রার স্কেল থেকে ভিন্ন, কেলভিন স্কেল একটি পরম স্কেল। এটি বৈজ্ঞানিক কাজে ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

এছাড়াও Rankine (R) স্কেল এখনও ইঞ্জিনিয়ারিং সিস্টেমে ব্যবহৃত হয়Rankine (R) একটি পরম-তাপমাত্রার স্কেলের সাথে সম্পর্কিত যেখানে পরিমাপের একক। যার উপর জলের হিমাঙ্ক 491.67° এবং স্ফুটনাঙ্ক 671.67° ।

পদার্থের কোন অবস্থায় তাপমাত্রা সর্বোচ্চ হয়?

পদার্থের সমস্ত অবস্থার মধ্যে, গ্যাসগুলির গতিশক্তি সর্বাধিক এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রায় ঘটে।

কোন তাপমাত্রার স্কেল সারা বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়?

সেলসিয়াস হল বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা তাপমাত্রার স্কেল।

কোন তাপমাত্রার স্কেল বিজ্ঞানীরা সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করেন?

কেলভিন হল বিজ্ঞানীদের দ্বারা সর্বাধিক ব্যবহৃত তাপমাত্রার স্কেল।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.