তুল্য রোধ কাকে বলে? শ্রেণী সমবায় ও সমান্তরাল সমবায়

একটি বর্তনীর সকল রোধের পরিবর্তে একটি রোধ ব্যবহার করা যায় যার রোধ হবে বর্তনীর মোট রোধের সমান, তবে সেই রোধকে তুল্যরোধ বলা হয়।

তুল্য রোধ হল যেখানে সমান্তরাল বা শ্রেণী সমবায়ে যুক্ত সমষ্টিগত রোধ গণনা করা হয়।

তুল্য রোধ দুই ধরনের হয়ে থাকে

  1. শ্রেণী সমবায়ের তুল্যরোধ (Rs)
  2. সমান্তরাল সমবায়ের তুল্য রোধ(Rp)

১. শ্রেণী সমবায়ের তুল্যরোধ (Rs)

একটি বর্তনীকে শ্রেণী সমবায়ের তুল্যরোধ (Rs) বলা হয় যখন বর্তনীতে থাকা সমস্ত রোধগুলির মধ্য দিয়ে একই পরিমাণ কারেন্ট প্রবাহিত হয় কিন্তু ভোল্টেজ আলাদা আলাদা হয়।

উপরের ছবিতে দেখতে পাচ্ছেন, R1, R2, Rn পর্যন্ত রোধগুলি শ্রেণী সমবায়ে যুক্ত আছে। বর্তনীর মধ্যে থাকা কোনো একটি রোধ কাজ করা বন্ধ করে দেয় তাহলে সম্পূর্ণ বর্তনীটি কাজ করা বন্ধ করে দেবে।

২. সমান্তরাল সমবায়ের তুল্যরোধ(Rp)

একটি বর্তনীকে সমান্তরাল সমবায়ের তুল্যরোধ (Rs) বলা হয় যখন বর্তনীতে থাকা সমস্ত রোধগুলির মধ্যের বিভব প্রভেদ একই হয় কিন্তু কারেন্ট আলাদা আলাদা হয়।

উপরের চিত্রটি সমান্তরালভাবে সংযুক্ত প্রতিরোধকের ‘n’ সংখ্যা দেখায়। R1, R2, Rn পর্যন্ত রোধগুলি সমান্তরাল সমবায়ে যুক্ত আছে। যদি কোনো রোধ কাজ করা বন্ধ করে দেয় তাহলেও বাকি রোধগুলি বন্ধ হবে না।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.