দাবানল কাকে বলে? – দাবানলের কারণ | দাবানলের প্রভাব

প্রাকৃতিক অথবা মানুষের অসাবধানতার ফলে বা দুর্ঘটনাজনিত কারণে বনভূমিতে সংঘটিত অনিয়ন্ত্রিত অগ্নিকাণ্ড ঘটতে দেখা যায়, একে দাবানল বলে

দাবানলের কারণ

দাবানল প্রাকৃতিক এবং মানবিক কারণের ঘটে থাকে তাই এই দুটি বিষয়ে গভীরভাবে আলোচনা করা হল :

প্রাকৃতিক কারণ

সমস্ত দাবানলের প্রায় ১০ শতাংশ জন্য প্রাকৃতিক কারণ দায়ী। প্রাকৃতিক কারণগুলি হল :

১) বজ্রপাত: বজ্রপাতের কারণে মোটামুটি ভালো সংখ্যক দাবানল হয়। বজ্রপাত একটি স্ফুলিঙ্গ উত্পাদন করতে পারে, এটি আগুনের সূত্রপাত করতে পারে।

২) আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাত: আগ্নেয়গিরির অগ্ন্যুৎপাতের সময় উত্তপ্ত লাভা আশেপাশের মাঠ বা জমিতে প্রবাহিত হয়ে দাবানল শুরু করে।

মানবিক কারণ

সমস্ত দাবানলের ৯০ শতাংশ মানুষের দ্বারা সৃষ্ট হয়। দাবানলের মানবিক কারণগুলির বিশদ বিবরণ দেওয়া হল।

১) অগ্নিসংযোগ: কিছু লোক ইচ্ছাকৃতভাবে জমি, বাড়ি বা অন্য কোনো সম্পত্তি ধ্বংস করার জন্য আগুন লাগিয়ে দিতে পারে। দূষিতভাবে সম্পত্তি পোড়ানোর এই কাজটি দাবানলের সমস্ত ঘটনাগুলির প্রায় ৩০ শতাংশ তৈরি করে।

২ ) ধূমপান: ধূমপান বিশ্বব্যাপী আগুন এবং মৃত্যুর প্রধান কারণ। ড্রাইভিং, হাঁটা বা বাইক চালানোর সময় লোকেদের ধূমপানের একটি অনিয়ন্ত্রিত অভ্যাস রয়েছে এবং সিগারেট জলন্ত অবস্থায় ফেলে দেওয়ার কারণে বেশিরভাগই আগুন শুরু করবে।

৩) অনুপস্থিত ক্যাম্পফায়ার: ক্যাম্পিং সময় লোকেরা সাধারণত প্রজ্বলিত আগুন বা দাহ্য পদার্থগুলি অযত্নে রেখে দেয় যা দাবানল জ্বালাতে পারে। ২০০৬ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বনভূমিতে ৭৩১১০টি দাবানলের প্রায় অর্ধেক মানুষই ছড়িয়ে দিয়েছিল৷

৪) আতশবাজি: আতশবাজি বিস্ফোরক দাবানল শুরু করতে পারে। ২০১৬ সালে, আতশবাজি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেব্রাস্কা রাজ্যে 57টি আগুন শুরু করে যা ২৮৫৩৬৫ ডলার ক্ষয়ক্ষতিতে পরিণত হয়েছিল।

৫) ধ্বংসাবশেষ পোড়ানো: আবর্জনা জমে থাকা কমানোর উপায় হিসাবে বর্জ্য এবং আবর্জনাকে অনেক সময় পুড়িয়ে ছাই করা হয়। বর্জ্য পদার্থ বা আবর্জনা পোড়ানোর পর যা অবশিষ্ট থাকে তা হল ধ্বংসাবশেষ যা ধীরে ধীরে পুড়ে যায়। এই ধীরে ধীরে জ্বলতে থাকা ধ্বংসাবশেষ সম্ভাব্য যেকোন কিছুতে আগুন লাগিয়ে দিতে পারে এবং তাপের কারণে দাবানল শুরু করতে পারে।

৬) যন্ত্রপাতি দুর্ঘটনা: গ্যাস বেলুনের বিস্ফোরণ এবং গাড়ি দুর্ঘটনার মতো যন্ত্রপাতি দুর্ঘটনা দাবানলকে প্রজ্বলিত করতে পারে।

দাবানলের প্রভাব

১) বাস্তুতন্ত্র এবং জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি– দাবানল আবাসস্থল এবং বিভিন্ন উদ্ভিদ ও প্রাণীর জটিল সম্পর্ক ধ্বংস করে যা বাস্তুতন্ত্র এবং জীববৈচিত্র্যের ক্ষতি করে ।যেহেতু এই অঞ্চলে জীবনকে সমর্থনকারী উদ্ভিদ জীবন পুড়ে গেছে, তাই প্রাণীদের অন্যত্র আবাসস্থল খুঁজতে হবে।

২) মাটির অবক্ষয় – দাবানল মাটির উপকারী অণুজীবকেও মেরে ফেলে যা মাটি ভেঙ্গে এবং মাটির প্রায় পুরো পুষ্টিগুণকে ধ্বংস করে। গাছ এবং গাছপালা শিকড় পুড়িয়ে মাটি খালি করে এটি সহজেই মাটি ক্ষয়ের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ করে তোলে।

৩) অর্থনৈতিক ক্ষতি – স্থানীয় কর্তৃপক্ষ নিয়ন্ত্রণ করতে প্রচুর খরচ করে। অগ্নিনির্বাপক বাহিনীর একটি বাহিনী সাধারণত উত্তেজনাপূর্ণ আগুন নেভাতে মোতায়েন করা হয়। উপরে থেকে বিশাল লিটার জল এবং ফসফেট সার ড্রপ করার জন্য বিমানগুলি মোতায়েন করা হয়। এই সমস্ত অর্থ ব্যয় হয় এবং এলাকাটি অর্থনৈতিকভাবে এগিয়ে যেতে ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে।

৪) বন অবক্ষয় – যখনই বনে আগুন লাগে, হাজার হাজার একর গাছপালা ও গাছপালা নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। প্রায় প্রতি বছর, বিভিন্ন বনাঞ্চল জুড়ে বনের দাবানল প্রত্যক্ষ করা হয় যা মাটির উর্বরতা, জীববৈচিত্র্য এবং বাস্তুতন্ত্রের মতো নির্দিষ্ট বন বৈশিষ্ট্যের গুণমানকে ক্রমাগতভাবে হ্রাস করে।

৫) বায়ু দূষণ – যখন উদ্ভিদের জীবন আগুনের দ্বারা ধ্বংস হয়ে যায়, তখন আমরা যে বায়ু শ্বাস নিই তার গুণমান হ্রাস পায় এবং বায়ুমণ্ডলে গ্রীনহাউস গ্যাস বৃদ্ধি পায় যা জলবায়ু পরিবর্তন এবং বিশ্ব উষ্ণায়নের দিকে পরিচালিত করে । অধিকন্তু, প্রচুর পরিমাণে ধোঁয়া এবং ধূলিকণা বায়ুমণ্ডলে নিঃসৃত হয়, যার ফলে বায়ু দূষণ হয় ।

৬) জলাশয় ধ্বংস – গাছপালা আবরণ জলাধার রক্ষাকারী হিসাবে কাজ করে । যখনই গাছপালা পুড়ে যায়, নদীগুলির প্রাকৃতিক সুরক্ষা ব্যবস্থা প্রভাবিত হতে পারে।

৭) মানব কল্যাণ এবং স্বাস্থ্যের উপর প্রভাব – দাবানল কিছু প্রাণহানির জন্য অবদান রেখেছে, বিশেষ করে অগ্নিনির্বাপক এবং জীবন রক্ষাকারীদের প্রভাবিত করে। ধোঁয়া এবং ধূলিকণার প্রভাব তীব্র শ্বাস-প্রশ্বাসের অস্বস্তি সৃষ্টি করে এবং অ্যালার্জি এবং শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ব্যক্তিদের স্বাস্থ্যকে আরও খারাপ করতে পারে।

কাঠের ছাইতে ম্যাগনেসিয়াম, পটাসিয়াম এবং ক্যালসিয়াম সহ প্রায় প্রতিটি উদ্ভিদের প্রয়োজনীয় পুষ্টি উপাদান রয়েছে। ছাইতে কার্বনেটও থাকে যা গাছের সুস্থ বৃদ্ধির জন্য অম্লীয় মাটিকে নিরপেক্ষ করে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.