নাক ডাকা বন্ধ করার উপায়

অনেকেই আছেন যারা ঘুমোনোর পর খুব জোরে জোরে শব্দ করে নাক ডাকে। ধরুন আপনার পাশে এমন কেউ জোরে জোরে শব্দ করে নাক ডাকছে, আপনি কি ঘুমোতে পারবেন? একেবারেই না।

এছাড়াও অনেক সময় দেখা গেছে নতুন জায়গায় গিয়ে নাক ডাকার কারণে আমরা লজ্জায় পড়ে যাই। এমনকি নাক ডাকার কারণে বিবাহ বিচ্ছেদের মতোও ঘটনা ঘটেছে। তাহলে কি করবেন? আসুন জেনে নিই।

নাক ডাকার কারণ কি?

ঘুমানোর সময় গলার কাছের মাংসপেশি দ্বারা শ্বাস-নিঃশ্বাস চলাচলের জায়গা বন্ধ করে দেয়। যার ফলে ওই জায়গা দিয়ে প্রশ্বাস নেওয়ার সময় হওয়া ওই পেশীকে ধাক্কা দেয় এবং পেশী কম্পনের মাধ্যমে শব্দের সৃষ্টি হয়।

ঠিক যেমন বাঁশির মধ্যে হাত দিয়ে হওয়াকে আটকে রাখলে শব্দের সৃষ্টি হয় । ঠিক তেমনি গলার পেশির সঙ্গে হওয়ার বাধা সৃষ্টির কারণে নাক ডাকার শব্দ হয়।

নাক ডাকার ফলে আমাদের কি কি সমস্যা দেখা দেয়?

ঘন ঘন নাক ডাকা আপনার অভিজ্ঞতার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়:

  • দিনের বেলা তন্দ্রাচ্ছন্নতা।
  • মনোনিবেশ করতে অসুবিধা।
  • ঘুমের কারণে যানবাহন দুর্ঘটনা।
  • উচ্চ রক্তচাপ, বা উচ্চ রক্তচাপ।
  • হৃদরোগ।
  • স্ট্রোক।
  • সম্পর্কের দ্বন্দ্ব।

নাক ডাকার ফলে আমাদের ফুসফুসে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন পৌঁছতে পারেনা। তাই নাক ডাকা বন্ধ করার বিষয়ে আপনাকে প্রয়োজনই উপায়গুলি খুঁজে নেওয়া উচিত। অথবা ডাক্তার এর সঙ্গে পরামর্শ করুন।

নাক ডাকা বন্ধ করার উপায়

আমাদের জীবন পদ্ধতিও নাক ডাকার কারণ হতে পারে। নাক ডাকা বন্ধের উপায়গুলি হলো :

১. ওজন বেশি হলে ওজন কম করুন

এটি গলায় টিস্যুর পরিমাণ কমাতে সাহায্য করবে যা আপনার নাক ডাকার কারণ হতে পারে। আপনি হয়তো দেখেছেন যে , যেসব মানুষের ওজন বেশি হয় ওই সমস্ত মানুষের বেশিরভাগ মানুষই নাক ডাকেন।

স্বাস্থ্যকর খাবার খেয়ে আপনার সামগ্রিক ক্যালরির পরিমাণ কমিয়ে ওজন কমাতে পারেন। আপনি প্রতিদিন নিয়মিত ব্যায়াম ও শরীরচর্চা করুন। শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমানোর জন্য পুষ্টি সংক্রান্ত অভিজ্ঞ ডাক্তার এর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেন ।

তাই ওজন কমানোর ফলে আপনার নাক ডাকার সমস্যা কমে যেতে পারে।

২. একপাশে ঘুমোন

সোজাহয়ে ঘুমালে কখনও কখনও জিহ্বা গলার পিছনে চলে যায়, যা আপনার গলা দিয়ে বায়ুপ্রবাহকে আংশিকভাবে অবরুদ্ধ করে। বাতাসকে সহজে প্রবাহিত করতে এবং আপনার নাক ডাকা কমাতে বা বন্ধ করার জন্য একপাশে ঘুমোতে পারেন।

৩. বিছানার মাথা উপরে তুলুন

আপনার বিছানার মাথার দিকটা যদি চার ইঞ্চির মতোউঁচু থাকে, তাহলে শ্বাসনালী খোলা থাকতে পারে ঘুমোনোর পরও। যার ফলে নাক ডাকা কিছুটা কমে যেতে পারে অথবা বন্ধ হয়ে যেতেও পারে।

আপনার বিছানার মাথা চার ইঞ্চি উঁচু করে আপনার শ্বাসনালী খোলা রেখে নাক ডাকা কমাতে সাহায্য করতে পারে।

৪. ধূমপান বন্ধ করুন

ধূমপান একটি অস্বাস্থ্যকর অভ্যাস যা আপনার নাক ডাকাকে আরও খারাপ করতে পারে। তাই ধূমপান বন্ধ করার চেষ্টা করুন।

৫. অ্যালার্জি

অ্যালার্জি আপনার নাক দিয়ে বায়ুপ্রবাহ কমাতে পারে, যা আপনাকে আপনার মুখ দিয়ে শ্বাস নিতে বাধ্য করে। এটি আপনার নাক ডাকার সম্ভাবনা বাড়িয়ে দেয়। তাই অ্যালার্জি সমন্ধে ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

6. নাকের গঠনগত সমস্যা ঠিক করুন

কিছুকিছু মানুষের জন্মগত ভাবে অথবা কোনো আঘাতের কারণে নাক বিচ্যুত আকারের হয়ে থাকে। যার ফলে নাক দিয়ে শ্বাস চলাচলের সমস্যা দেখা দেয়। নাক ডাকার কারণ হতে পারে ।

এরকম যদি কোনো সমস্যা থেকে থাকে তাহলে নিকটবর্তী ডাক্তারের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

7. ঘুমনোর আগে অ্যালকোহল না খাওয়া

অ্যালকোহল গলার পেশী শিথিল করতে পারে, যার ফলে নাক ডাকা হয়।

যদি আপনি অ্যালকোহল সেবন করেন । তাহলে চেষ্টা করুন ঘুমনোর ২ ঘণ্টা আগে যেনো অ্যালকোহল সেবন না করেন।

৮. পর্যাপ্ত ঘুমান

প্রতি রাতে আপনার প্রয়োজনীয় সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুমান।

৯. মুখে নাক ডাকা বন্ধ করার জন্য ডেন্টাল মাউথপিস লাগাতে পারেন

ডেন্টাল মাউথপিস যাকে “ওরাল অ্যাপ্লায়েন্স” বলা হয় তা আপনার বাতাসের পথ খোলা রাখতে সাহায্য করতে পারে, যার ফলে আপনার শ্বাস নেওয়া সহজ হয়। এটি নাক ডাকা প্রতিরোধ করে। এই ডিভাইসগুলির একটি তৈরি করার জন্য আপনাকে আপনার দাঁতের ডাক্তারের সাথে দেখা করতে হবে।

১০. একটি CPAP (একটানা পজিটিভ এয়ারওয়ে প্রেসার) মেশিন ব্যবহার করুন।

যদি চিকিৎসাগতভাবে উপযুক্ত হয়, আপনি ঘুমানোর সময় আপনার নাকের উপর চাপযুক্ত এয়ার মাস্ক পরা আপনার শ্বাসনালী খোলা রাখতে সাহায্য করতে পারে। এই চিকিত্সা প্রায়ই অবস্ট্রাকটিভ স্লিপ অ্যাপনিয়া (অর্থাৎ যাদের গলায় নিঃশাস নেওয়ার জন্য জায়গায় বন্ধ হয়ে যাওয়ার কারণে ঘুম হয়না)চিকিৎসার জন্য সুপারিশ করা হয়।

১১. পালটাল ইমপ্লান্ট পরেন (Wear palatal implants.)

এছাড়াও pillar procedure,” বলা হয়, এই চিকিৎসা আপনার মুখের নরম তালুতে পলিয়েস্টার ফিলামেন্টের ব্রেইড স্ট্র্যান্ড ইনজেকশনের অন্তর্ভুক্ত। এটি নাক ডাকা কমাতে এটি শক্ত করে।

১২. UPPP (uvulopalatopharyngoplasty) পান।

এই ধরনের অস্ত্রোপচার গলার টিস্যুকে শক্ত করে এই আশায় যে এটি নাক ডাকা কম করবে। লেজার-সহায়তা ইউভুলোপালাটোফ্যারিঙ্গোপ্লাস্টি (LAUPPP), যা কখনও কখনও UPPP-এর চেয়ে বেশি কার্যকর, এছাড়াও পাওয়া যায়।

15. রেডিওফ্রিকোয়েন্সি টিস্যু অ্যাবলেশন (সোমনোপ্লাস্টি)।

এই নতুন চিকিত্সা নাক ডাকা কমাতে আপনার নরম তালুতে টিস্যু সঙ্কুচিত করতে কম-তীব্রতার রেডিও তরঙ্গ ব্যবহার করে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.