প্রোগ্রামিং কি? প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি?

সহজ ভাবে বললে, প্রোগ্রামিং হলো কিছু কোড যা কম্পিউটার বুঝতে পরে ওই নির্দেশ গুলিকে এবং ওই নির্দেশকা অনুযায়ী কম্পিউটার কাজ করে ।

উদাহরণ, আমরা কম্পিউটারে যা কিছু কাজ করি ওই সমস্ত কাজ করার জন্য কম্পিউটার কে নির্দেশ দেওয়ার জন্য প্রোগ্রামিং লেখা হয় । ওই লেখা যা কম্পিউটার বুঝতে পারে এবং ওই কোডের নির্দেশনা অনুযায়ী কম্পিউটার আউটপুট প্রদান করে থাকে।

কম্পিউটার এর হার্ডওয়্যার শুধুমাত্র বাইনারি সংখ্যা বুঝতে পারে। অর্থাৎ 0 এবং 1 ছাড়া কিছুই বুঝতে পারেনা। কিন্তূ আমাদের দারা সমস্ত নির্দেশকে 0,1 এ দেওয়া অনেক সমস্যার কারণ।

কারণ 0,1 ব্যাবহার করে কোনো নির্দেশ দিতে গেলে অনেক লম্বা কোড হয়ে যাবে এবং ভুল হওয়ারও সম্ভাবনা থাকে। তাই প্রোগ্রামিং এর মাধ্যমে আমরা একটি নির্দিষ্ট নিয়ম অনুযায়ী কোড গুলি লিখি এবং কম্পিউটার ওই কোডগুলি কে 0,1 এ রূপান্তরিত করে প্রসেসিং করে।

প্রোগ্রামিংয়ের কাজ হলো, মানুষ এবং কম্পিউটারের হার্ডওয়্যারের মাঝে মধ্যস্থতা করতে সাহায্য করে।

প্রোগ্রামিং লেখাতে আমরা অনেক কিছু নির্দেশ এবং লজিক দিয়ে থাকি। যার ফলে বিভিন্ন সময়ে ওই লজিক অনুযায়ী কম্পিউটার কাজ করে।

প্রোগ্রামিং কোথায় ব্যবহার করা হয়?

আমরা কম্পিউটারে যা কিছু কাজ করি ওই কাজগুলি করার জন্য আগে থেকেই প্রোগ্রামিং লেখা আছে । এবং যখন আমরা কোনো অপশনে ক্লিক করি তখন ওই প্রোগ্রাম টি run হয় এবং প্রসেসরের মাধ্যমে প্রসেসিং হয়ে আউটপুট রেজাল্ট পাই।

কোনো রোবটকে চালনা করার জন্য ওই রোবটের ভেতরে কোনো প্রসেসরের লাগানো হয় এবং সেই সঙ্গে প্রোগ্রাম লিখে দেওয়া হয়। যার ফলে নির্দেশ অনুযায়ী ওই রোবট ওই নির্দেশিকা অনুযায়ী কাজগুলি সম্পন্ন করে।

বর্তমান দিন বিভিন্ন লাইটের মধ্যেও চিপ লাগানো থাকে এবং প্রোগ্রামিং করা থাকে।

এছাড়াও আমার মোবাইল, কম্পিউটারে তো প্রোগ্রামিং লেখা আছে তাই তো মোবাইল একপ্রকারের জীবন্ত।

গুগল ক্রোম ব্রাউজার প্রোগ্রামিং লেখার মাধ্যমেই বানানো হয়েছে।

windows অপারেটিং সিস্টেম কিংবা যেকোনো ধরনের সফটওয়্যার এগুলো প্রোগ্রামিং লিখে বানানো হয়।

প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ কি?

কম্পিউটারে নির্দেশ দেওয়ার জন্য আলাদা আলাদা প্রোগ্রামিং এর ভাষা তৈরি করা হয়েছে।

আলাদা আলাদা ভাষায় প্রোগ্রামিং লিখতে গেলে ওই ল্যাঙ্গুয়েজের নিয়ম অনুযায়ী লিখতে হবে।

ভিন্ন ভিন্ন জায়গায় আলাদা আলাদা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গয়েজের ব্যবহার করে কম্পিউটারকে নির্দেশ দেওয়া হয় ।

যেমন গেম বানানোর জন্য আলাদা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যাবহার করা হয়। আবার উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম বানানোর জন্য আলাদা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যাবহার করা হয়।

আলাদা আলাদা প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যাবহার করার উদ্দেশ্য হলো, সমস্ত প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ বিভিন্ন কাজের জন্য বানানো হয়েছে। তাই যে প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ ব্যাবহার করে ওই নির্দিষ্ট কাজটি ভালোভাবে সম্পন্ন করা সম্ভব ওই কাজটি করা হয়ে থাকে ওই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের মাধ্যমে।

কিছু প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ এর উদাহরণ:

  • C
  • C++
  • Java
  • Python
  • PHP

এই সমস্ত প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের ব্যাবহার আলাদা আলাদা জায়গায় করা হয় এবং ওই সমস্ত প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের লেখার ধরন আলাদা আলাদা হয়।

এই প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজের কোড অন্য জায়গায় কাজ করবে না।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.