ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায়? ১৩ টি সহজ উপায়ে

ফেসবুক হলো সবথেকে বড়ো সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম মাসে ২.৬ বিলিয়ন অর্থাৎ ২৬০ কোটি মানুষ নিয়মিত ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন। তাই ফেসবুক থেকে আয় করার সুযোগও অনেক আছে। শুধুমাত্র আমাদের নজর দিতে হবে ফেসবুক থেকে কিভাবে টাকা আয় করবেন।

আসুন তাহলে জেনে নিই ফেসবুক থেকে কি কি ভাবে টাকা আয় করা সম্ভব হয়। ফেসবুক থেকে আয় করার নিম্নলিখিত বিষয়গুলির মধ্যে ১৩ টি সহজ উপায় লেখা হলো। এই ১৩ টি সহজ উপায়ের মাধ্যমে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা আয় করা সম্ভব ফেসবুক থেকে।

১. জিনিসপত্র বিক্রি করতে পারেন

আমরা ফেসবুক সবাই ব্যবহার করি এবং অনেকেই শুধু শুধু সময় নষ্ট করার জন্য ফেসবুক ব্যবহার করে কিন্তু অনেকেই আছেন ফেসবুক থেকে ইনকাম করছেন জিনিসপত্র বিক্রি করার মাধ্যমে।

ফেসবুকে আপনি অসংখ্য নতুন গ্রাহক পেতে পারেন এবং ওই গ্রাহককে জিনিসপত্র দেখাতে পারেন ছবির মাধ্যমে এবং জিনিসপত্র বিক্রি করতে পারেন।

২. পরিষেবা প্রদান করতে পারেন

ফেসবুকের মাধ্যমে শুধুমাত্র জিনিসপত্র বিক্রি করা হবে এরকম তা নয়। আপনি ফেসবুকের মাধ্যমে বিভিন্ন পরিষেবা প্রদান করতে পারেন।

যেমন সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজার অথবা ডিজিটাল মার্কেটিং ফ্রিল্যান্সিং এর কাজ , এছাড়াও গ্রাহকের বাড়িতে গিয়ে পরিষেবা প্রদান করে আসতে পারেন। এই সমস্ত কিছুর জন্য ফেসবুক থেকে গ্রাহক পেতে পারেন।

৩. ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল

ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল এর মাধ্যমে লেখালেখি করে ফেসবুক থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আরো জানুন: ফেসবুক ইনস্ট্যান্ট আর্টিকেল সম্বন্ধে।

৪. ফেসবুক পেজ থেকে আয়

আপনি ফেসবুক পেজ বানাতে পারেন এবং ওই পেজের মধ্যে নিয়মিত পোস্ট করতে পারেন যার ফলে অধিক পরিমাণ ফেসবুক ব্যবহারকারী আপনার পেজটি ফলো করতে পারে।

অধিক ফেসবুক ব্যবহারকারী আপনার পেজে যুক্ত হলে যেকোনো পোস্ট করলেই অধিক পরিমাণ মানুষের কাছে ওই পোস্টগুলি পৌঁছে যাবে।

এরপর যেভাবে ইনকাম করবেন সেগুলি হলো:

  • স্পনসর বিজ্ঞাপনের পোস্ট করতে পারেন ।
  • জিনিসপত্র বিক্রি
  • করতে পারেন যেমন জামা কাপড় অথবা অন্যান্য কোন প্রোডাক্ট।
  • পরিষেবা বিক্রি করতে পারেন
  • অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া ব্যাক্তি পেয়েছে এবং অন্যান্য কিছু একাউন্ট কে প্রমোট করতে পারেন।
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারেন।

আরো জানুন: স্পনসরশিপ বিজ্ঞাপন কি?

৫. ফেসবুক গ্রুপ থেকে আয়

ফেসবুকের পেজ এর মত ফেসবুকের গ্রুপ বানাতে পারবেন এবং ওই গ্রুপে ফেসবুক ব্যবহারকারী যুক্ত হতে পারবে।

ফেসবুকের পেজ এর মতই একই ভাবে আয় করতে পারবেন ফেইসবুক গ্রুপ তৈরি করে।

এছাড়াও ফেসবুক গ্রুপের আরেকটা অতিরিক্ত আয় করার উপায় হল ফেসবুকের গ্রুপের সদস্যদের বিভিন্ন পোস্ট এপ্রুভ করার জন্য টাকা চার্জ করতে পারেন।

এছাড়াও ফেসবুক গ্রুপ থেকে ফেসবুক পেজের মতোই সমস্ত কিছুর মাধ্যমে আয় করা সম্ভব।

৬. এডমিন হিসেবে ইনকাম

ফেসবুক পেজ অথবা গ্রুপের এডমিন হিসেবেও কাজ করতে পারেন এবং টাকা ইনকাম করতে পারেন। ফেসবুকে প্লীজ অ্যাডমিন অথবা ফেসবুকের গ্রুপ এডমিন হিসেবে কাজ করে।

৭. অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং

এছাড়াও আপনার ফেসবুক প্রোফাইল থেকেও অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর মাধ্যমে আয় করতে পারবেন।

৮. সোশ্যাল মিডিয়া এক্সপার্ট

আপনার যদি সোশ্যাল মিডিয়া সম্বন্ধে অধিক জ্ঞান থাকে তাহলে ফেসবুকে বিজ্ঞানকে অন্যান্য ফেসবুক পেজ গ্রুপ অথবা বিভিন্ন কোম্পানির ফেসবুক পেজ অথবা গ্রুপকে দিতে পারেন যাতে ওই প্রেজ অথবা গ্রুপের ফলোয়ারের সংখ্যা বৃদ্ধি পায়।

এছাড়াও ফেসবুকে বিভিন্ন অ্যাডভার্টাইজ ক্যাম্পেইন চালানোর জন্য সোশ্যাল মিডিয়া এক্সপার্টের প্রয়োজন হয়ে থাকে তাই আপনি সোশ্যাল মিডিয়া হিসেবে আয় করতে পারেন।

৯. ফেসবুক পেজ অথবা গ্রুপ বিক্রি করতে পারেন

অনেক বেশি ফলোয়ার ফেসবুক পেজ অথবা গ্রুপ গুলি প্রচুর পরিমান টাকায় বিক্রি হয়ে থাকে। তাই আপনার যদি কোনো ফেসবুক পেজ অথবা গ্রুপ থাকে, ওগুলি বিক্রি করেও আয় করা সম্ভব।

১০. ভিডিও বিজ্ঞাপন

YouTube-এর মতো, ফেসবুক পেজে যদি ভিডিও আপলোড করেন তাহলে ওই ভিডিওতে বিজ্ঞপন দেখাবে। এবং ফেসবুক থেকে ওই বিজ্ঞাপনের টাকা আপনি পাবেন ।

Facebook-এরও ভিডিওর মাঝে ads শুরু করার জন্য ন্যূনতম 10,000 ফলোয়ার পেজের মধ্যে থাকা দরকার।এছাড়াও আগের 60 দিনে, আপনার অন্তত তিন মিনিটের ভিডিওগুলিতে 30,000 এক-মিনিটের ভিউ থাকতে হবে। তাহলেই ফেসবুক কোম্পানি আপনার পেজের মধ্যে আপলোড করা ভিডিওতে বিজ্ঞাপন দেখাবে এবং ওই বিজ্ঞাপনের টাকা পাবেন।

১১. ফেসবুক মার্কেটপ্লেস

ফেসবুকে মার্কেটপ্লেস একটি অপশন দেখতে পাওয়া যায়। ওই মার্কেটপ্লেসে আপনি যেকোনো জিনিস অথবা পরিষেবা সহজেই বিক্রি করতে পারবেন।

নিজস্ব অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে হাজার হাজার মানুষ কেনাকাটা এবং বিক্রয় করে থাকেন তাই আপনিও ফেসবুক মার্কেটপ্লেসে জিনিসপত্র বিক্রি করে আয় করতে পারবেন।

১২. ফেসবুক ফ্যান পেজ

আপনি যদি নিয়মিত ফেসবুক ব্যবহার করে থাকেন তাহলে অবশ্যই দেখেছেন যে ফেসবুকে প্রচুর সেলিব্রেটির আনঅফিসিয়াল এবং অফিশিয়ল ফ্যান পেজ থাকে।

ওই ফ্যান পেজ গুলি কোনো না কোনো ফেসবুক ব্যবহারকারী খুলেছে এবং ওই ফ্যানপেজে হই সেলিব্রেটির সংক্রান্ত তথ্য শেয়ার করার সঙ্গে সঙ্গে ওই সেলিব্রিটির ছবি দেওয়া জামা কাপড় এবং অন্যান্য জিনিসপত্র বিক্রি করার মাধ্যমে টাকা আয় করা হয়।

১৩. ফেসবুক বিজ্ঞাপন

ফেসবুকে বিজ্ঞাপন দিয়ে জিনিসপত্র এবং পরিষেবার প্রচার করতে পারেন এবং অধিক গ্রাহক পেতে পারেন।

অনেকেই ফেসবুকে বিভিন্ন জিনিসপত্রের ads দিয়ে থাকে এবং গ্রাহক পেয়ে থাকে। গুগল ads এর তুলনায় facebook ads কিছুটা সস্তা বলে মনে করা হয় তাই ফেসবুকে ads দিলে জিনিসপত্র বিক্রি করলে অনেক বেশি লাভঃ হওয়ার স্বভাবনা থাকে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.