LTE, VOLTE কি? জানুন সমস্তকিছু

LTE কি VoLTE কি

বর্তমানে অনেকের ফোনের নেটওয়ার্ক সিগনালের পাশে 4G LTE অথবা 4G VOLTE লেখাটি দেখা যায়। তাই আমাদের জানা উচিত হয়ে পড়ে 4G LTE কি? অথবা 4G VOLTE কি?

LTE কি?

LTE এর পুরো নাম হলো, Long-Term Evolution

২০০৮ সালে International Telecommunication Union যখন 4G স্ট্যান্ডার্ড এর কথা বলে , ওই সময় আমাদের কাছে, নাতো আমাদের কাছে হার্ডওয়ার ছিল, নাতো কোনো টেলিকম অপারেটর ওই স্পীড দিতে পারার ক্ষমতা রাখতো।

তাই টেলিকম অপারেটর যখন দেখতে পেলো 4G এর স্ট্যান্ডার্ডে পৌঁছতে প্রচুর সময় লাগবে, তাই 3G টেকনোলজি কে ধীরে ধীরে improve করতে করতে একদিন স্ট্যান্ডার্ড 4G তে যাওয়ার লক্ষ্য রেখেছিলো যার নাম রাখা হয়েছিল LTE (Long-Term Evolution )

কিছুসময় পরে , International Telecommunication Union ভাবলো , এভাবে তো 4G তে পৌঁছতে অনেক সময় লেগে যাবে। তাই বর্তমানে যেসব নেটওয়ার্ক 3G এর থেকে বেশী স্পীড দিতে পারবে, ওই নেটওয়ার্ক গুলিকে 4G LTE হিসেবে নাম দেওয়া যেতে পারে।

এরপর থেকে প্রায় সমস্ত টেলিকম অপারেটর 3G নেটওর্য়াকে LTE হিসেবে লেখা শুরু করলো। অর্থাৎ এটি সম্পূর্ণ 4G নয়।

LTE এর অর্থ হলো এটি 3G এর থেকে উন্নত এবং বেশি স্পীড দেবে কিন্তূ এটি আসল 4G নয়। আসল 4G এর স্পীড দেবে না।

এরপর সমস্ত টেলিকম অপারেটর তাদের নেটওয়ার্কের নাম 3G থেকে 4G LTE নাম দিয়েছিল, যেহেতু International Telecommunication Union সরাসরি কোনো টেলিকম অপারেটরের কাছে কন্ট্রোল ছিলনা তাই অনেকসময়ই দেখা যেত কিছু কিছু 3G নেটওয়ার্কের স্পীড 4G এর তুলনায় অনেক বেশি।

এভাবেই LTE কে কেউ 4G , কেউ 4G LTE অথবা LTE নামেও বলে থাকে । এর LTE এর অর্থ হলো এটি সঠিক 4G নয়।

এমনও হতে পারে আপনি 4G ব্যবহার করছেন কিন্তূ স্পীড দিচ্ছে না এর পেছনে হয়তো 3G কেই 4G এর নাম দিয়ে চালিয়ে দিচ্ছে।


VoLTE কি?

VoLTE (ভোল্টি) এর পুরো নাম হলো , Voice over Long-Term Evolution . নাম শুনেই হয়তো বুঝতে পারছেন LTE টি উন্নত করেই LTE এর আগে Vo লেখাটি যুক্ত হয়েছে। এই Vo টি হলো ভয়েস ওভার।

LTE নেটওয়ার্কে মোবাইল ফোন এলে ইন্টারনেট কানেকশন চলে যেত, কিন্তু বর্তমানের ভোল্টিতে ফোন এলে ইন্টারনেটে বন্ধ হবে না , এছাড়াও VoLTE নেটওয়ার্কে ইন্টারনেট স্পিড অনেক বেশি কারণ এটি সময়ের সংগে সংগে অনেক উন্নত করা হয়েছে।

ভোল্টি নেটওয়ার্কের যখন ফোনে কথা বলা হয় , Voice খুবই পরিষ্কার হয়, কারণ এটি High ইন্টারনেট স্পীডের কানেক্শনের মধ্যে দিয়ে ডাটা টি ট্রান্সফার হয় এবং ভয়েস কলার সময় অন্যান্য ইন্টারনেটের ডাটার স্পিড স্লো করে দিয়ে ভয়েস কে তাড়াতাড়ি পৌঁছে দেয়, যার ফলে VoLTE নেটওয়ার্কের কথা বলার সময় খুবই পরিষ্কারভাবে কথা বলা যায়।

একটি কথা মাথায় রাখতে ,হবে VoLTE এর মাধ্যমে কল করতে গেলে যার ফোন কল করছেন ওই ফোনটিও যেন VoLTE সাপোর্ট করে। নাহলে ওই 2G তে যেমন কল হয় ওইরকমই কল হবে এবং ভয়েস 2G এর মতোই হবে।

আগেকার দিনে 2G ,3G নেটওয়ার্কে কথা বলার সময় যেসব সমস্যাগুলি হতো, এখন ওই সমস্যা খুব কম দেখা যায়। ভোল্টি এর জন্যই সম্ভব হয়েছে।

ভোল্টি ব্যবহার করার জন্য আপনার ফোনে VoLTE সাপোর্ট করা হার্ডওয়্যার থাকতে হবে , হার্ডওয়্যার এর সঙ্গে টেলিকম অপারেটর যদি VoLTE নেটওয়ার্ক যদি provide করে তাহলেই VoLTE ব্যবহার করতে পারবেন।

VoLTE নেটওয়ার্ক কে আসল 4G Network বলা হয়।


LTE ও VoLTE এর মধ্যে পার্থক্য

LTEVoLTE
পুরো নাম Long-Term Evolutionপুরো নাম Voice over Long-Term Evolution
এটি সম্পূর্ণ 4G নেটওয়ার্ক নয়।এটিকে True 4G নেটওয়ার্ক বলা হয়ে থাকে।
ইন্টারনেট ব্যবহার করার সময় আপনার স্মার্টফোনে কল এলে ইন্টারনেট কানেকশন বন্ধ হয়ে যায়।ফোনে কল এলেও ইন্টারনেট কানেকশন বন্ধ হয় না।
সাধারণ 2G, 3G এর মতোই voice call এর অভিজ্ঞতা পাওয়া যায়।Voice call এর কোয়ালিটি পরিষ্কার ও দ্রুত হয়।
ভিডিও কল করার জন্য আলাদা কোনো app ইনস্টল করার দরকার হয় LTE নেটওয়ার্কে। যেমন Google Duo, Skype,FB Messenger, WhatsApp Messenger ইত্যাদি app install করার প্রয়োজন হয়।VoLTE তে কোনো app এর প্রয়োজন হয় না , সরাসরি মোবাইল নম্বর ডায়াল করে ভিডিও কল করা যায়।
LTE মোবাইল কিছুটা সস্তা হয় ভোল্টি মোবাইলের তুলনায় , কারণ VoLTE feature নেই তাই সস্তা।VoLTE মোবাইল ফোন কিছুটা দামি হয় LTE মোবাইলের তুলনায়। কারণ ভোল্টি Feature আছে তাই দামি হয়।

উপসংহার

বন্ধুরা আশাকরি LTE/VoLTE সমন্ধে আপনাদের সম্পূর্ণ তথ্য দিতে পেরেছি , যদি এরকম কোনো সমস্যা থাকে তাহলে কমেন্ট করুন , অথবা ফেসবুকে প্রশ্ন করতে পারেন।

সহজভাষায়, ২০০৮ এ 4G যখন ডেভেলপমেন্ট করার হচ্ছিলো ওই সময় 4G সম্পূর্ণভাবে 4G এর মতো স্পিড দিতো না , তাই ওই সময় 4G নেটওয়ার্কের নাম দেওয়া হয়েছিল LTE (Long-Term Evolution) ধীরে ধীরে 4G Improve করা হয়েছে যার নাম রাখা হয়েছে VoLTE (Voice over Long-Term Evolution) এই ভোল্টি কেই প্রকৃত 4G Network বলা হয়।

ফোন কেনার সময় ভোল্টি ফোন কেনাই ভালো , এবং এটি সব দিক থেকেই ভালো।

4G VoLTE এর পরে আর কোনো 4G এর upgradation নেই , VoLTE এর পরে 5G.

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *