VISA ও Master Card কি? পার্থক্য

VISA ও Master Card কি_ জানুন সমস্তকিছু

ব্যাংকিং ব্যবস্থা শুরু হওয়ার পর, আমরা ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট বানিয়ে ওই অ্যাকাউন্টে টাকা রাখতে পারি। এভাবেই অনেকে ব্যাংকের মধ্যে অ্যাকাউন্ট খুলতে শুরু করলো, যার ফলে বেশি গ্রাহক হয়ে যাওয়ার জন্য, নিজের রাখা টাকা তুলতে যাওয়ার সময় লম্বা লাইনে দাড়াতে হতো,

এই সমস্যার সমাধানের জন্য, ব্যাংক ATM মেশিনের ব্যবহার করা শুরু করলো, ব্যাংক একটি ATM কার্ড দেবে ওই কার্ডটি ব্যাবহার করে ওই ATM মেশিন থেকে টাকা তুলতে পারবে।

কোনো ব্যাংকের ATM কার্ড দিয়ে ওই ব্যাংকের কোনো ATM মেশিন থেকে তোলা যেতো। যার ফলে সব জায়গায় সমস্ত ব্যাংকের এটিএম না থাকায় গ্রাহকের সমস্যা দেখা দিল।

এই জন্য, VISA এবং Master Card নামের কোম্পানি কাস্টমারের অসুবিধাগুলিকে লক্ষ্য করে পৃথিবীর সমস্ত ব্যাঙ্কের সংঙ্গে চুক্তি করে , এবং বেঁধে দেয় এই দুটি কোম্পানি প্রত্যেক ব্যাংকে নিজেদের নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত করে।যার ফলে VISA অথবা Master Card এই দুটির কার্ডের মধ্যে যেকোনো একটি card দিয়ে, যেকোনো Bank এর ATM থেকে টাকা তুলতে পারবেন।

কারণ, এই দুটি কোম্পানির সঙ্গে সমস্ত ব্যাংক যুক্ত আছে, তাই অন্য কোনো ব্যাংকের ATM থেকে টাকা সহজেই তোলা সম্ভব।

এছাড়াও অনলাইনে সহজেই পেমেন্ট করা সম্ভব হয় এই দুটি কার্ডের মাধ্যমে, কারণ এই দুটি কার্ড প্রায় সমস্ত ব্যাংকের সঙ্গেই যুক্ত হয়ে আছে। পরিবর্তে এই কোম্পানিগুলি লেনদেনের সময় একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা চার্জ করে। এছাড়া VISA card ও master card নিতে গেলে কিছু টাকা লাগে ।

বিভিন্ন ব্যাংক এই দুটি কোম্পানির (Master card ও VISA) মধ্যে, যেকোনো একটি কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত হয়ে VISA অথবা Master Card দেয়।

VISA ও Master Card এর মাধ্যমে অন্য ব্যাংকের ATM থেকে টাকা তোলা হয় কিভাবে?

যেহেতু, VISA Card এর কম্পানি ও Master Card এই দুটি কোম্পানি সমস্ত ব্যাংকের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আছে, তাই আপনি যখন অন্য কোনো ব্যাংকের ATM থেকে টাকা তুলতে যান, তখন ওই ব্যাংকটি যেহেতু VISA ও master card কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত তাই ওই দুটি কোম্পানি ওই ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে টাকা আছে কিনা তা Confirm করে।

এক অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেয়, এবং ওই যে ব্যাংকের ATM থী টাকা তুলছেন ওই ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে যুক্ত করে। এভাবেই একটি রেকর্ড মেইনটেইন করে।

আর এই সমস্ত রেকর্ড মেইনটেইন এর জন্য transaction এর কিছু টাকা চার্জ করে।

ভিসা ও মাস্টার কার্ডের সুবিধা

এই কার্ডের সুবিধা হলো পৃথিবীর প্রায় সমস্ত জায়গার ব্যাংকের সঙ্গে এই দুটি কোম্পানির লিংক আছে। তাই ওই কার্ড নিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তের ATM থেকে টাকা তোলা সম্ভব।

ভিসা ও মাস্টার কার্ডের অসুবিধা

  • প্রথমে কার্ড নেওয়ার জন্য টাকা লাগে।
  • Transaction এর জন্য টাকা চার্জ করে। যদিও ATM থেকে ফ্রী তে টাকা তোলার জন্য একটি লিমিট থাকে প্রতিমাসে।
  • মার্চেন্ট রা অনলাইনে টাকা গ্রহণ করার জন্য transcation এর একটি শতাংশ টাকা কেটে নেয়।

ভিসা ও মাস্টার কার্ডের পার্থক্য

সহজ ভাষায় বলতে গেলে , ভিসা ও মাস্টার কার্ড দুটি আলাদা কোম্পানি তাই কার্ডের নাম ও আলাদা আলাদা হয়।

উপসংহার

ভিসা ও মাস্টার কার্ড হলো, দুটি আলাদা আলাদা আমেরিকার কোম্পানি, এই দুটি কোম্পানি পৃথিবীর প্রায় সমস্ত ব্যাংকের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আছে। যার ফলে, ব্যাংক VISA Card অথবা Master Card গ্রাহককে দিয়ে থাকে।

ভিসা কার্ড হলে, কার্ডের ওপরে VISA লেখা থাকে। মাস্টার কার্ড হলে, কার্ডের ওপরে Master Card লেখা থাকে।

এই দুটি কার্ড ব্যাবহার করে, অন্য ব্যাংকের ATM থেকে টাকা তোলা সম্ভব , দেশের বাইরের ব্যাংক থেকেও টাকা লেনদেন করা সম্ভব কারণ ওই দুটি কোম্পানি সমস্ত ব্যাংকের সঙ্গেই যুক্ত, তাই লেনদেন করিয়ে দেবে।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.