ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট মানে কি? ব্যবহার, সুবিধা, অসুবিধা

বর্তমানে আমরা দেখতে পাই ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট খোলার সময় অথবা ব্যাংকের থেকে আমাদের বলা হয় ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য।

এছাড়াও শেয়ার মার্কেটে ইনভেস্ট করতে গেলে আমাদের ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের প্রয়োজন হয়।

মূলত ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট শেয়ার মার্কেটে ইনভেস্ট করার জন্য প্রয়োজন হয়ে থাকে।

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট কি?

শেয়ার মার্কেট থেকে শেয়ার কেনার পরে, ওই শেয়ারকে যে অ্যাকাউন্টের মধ্যে রাখা হয় ওই অ্যাকাউন্টকে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট (Demat Account) বলা হয়।

অর্থাৎ, শেয়ার মার্কেটে শেয়ার কেনার আগে আপনাকে একটি ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। এরপর ডিম্যাট অ্যাকাউন্টে আপনি শেয়ার কিনে রাখতে পারবেন।

মার্কেটে ইনভেস্ট অথবা ট্রেডিং করার জন্য মূলত দুটি একাউন্টের প্রয়োজন হয়ে থাকে:

  • একটি হলো ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট।
  • এবং অপরটি হল ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট।

শেয়ার মার্কেটে শেয়ার কেনাবেচার জন্য ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট এর প্রয়োজন হয় এবং কেনা শেয়ারকে সঞ্চিত (Store) করে রাখার জন্য ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর প্রয়োজন হয়।

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট কেন ব্যবহার করা হয়?

ধরুন আপনি শেয়ার মার্কেটে (Share market) কিছু শেয়ার কিনে ফেললেন ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এবং ওই শেয়ারকে কয়েক দিন অথবা কয়েক বছরের জন্য বিক্রি করতে চান না অর্থাৎ আপনার কাছে রেখে দিতে চান এর জন্য প্রয়োজন হয় ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর।

অর্থাৎ, আপনি যখন শেয়ার কিনে ফেলেন এবং কোনো শেয়ারকে কয়েক দিন অথবা কয়েক বছরের জন্য রেখে দেন ওই শেয়ার আসলে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে সঞ্চিত থাকে।

যদি আপনি কোন শেয়ার কেনার পরেঐদিনই বিক্রি করে ফেলেন তাহলে ওই শেয়ার ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের মধ্যে স্টোর হয়ে থাকেনা।

যেহেতু, ট্রেডিং অ্যাকাউন্ট খুলে আপনি শেয়ার কেনার পরে অনেক দিনের জন্য কিনে রাখতে পারেন তাই ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খুলে দেয়া হয় ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের সঙ্গে সঙ্গে। যার ফলে আপনি ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে কেনা শেয়ারকে ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের মধ্যে স্টোর করে রাখতে পারবেন।

ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের সঙ্গে ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের সঙ্গে লিংক করা থাকে। তাই আপনি যদি কোনো শেয়ারকে কিনে ফেলেন এবং ওই দিনের মধ্যে বিক্রি না করে থাকেন তাহলে ওই শেয়ার ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে স্টোর হয়ে যাবে।

এবং পরবর্তীকালে বিক্রি করতে চাইলে শেয়ার বিক্রি করতে পারবেন ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এবং ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার বিক্রি হয়ে যাবে এবং ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট খালি হয়ে যাবে।

যেহেতু, ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের মধ্যে শেয়ার স্টোর করা হয়ে থাকে তাই ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে সঞ্চিত শেয়ারকে বিক্রি করার সময় খুব সামান্য একটি চার্জ কেটে নেওয়া হয়।

যদি আপনি শেয়ারকে কেনার পরে ওই দিনের মধ্যেই বিক্রি করে দেন তাহলে ওই শেয়ার ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে স্টোর হয়ে থাকে না তাই আপনাকে ওই ক্ষেত্রে কোনো রকম ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর স্টোর করে রাখার জন্য চার্জ দিতে হয় না।

ডিম্যাট অ্যাকাউন্টের সুবিধা

আপনি শেয়ার কেনার পরে ওই শেয়ার যেহেতু ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে থাকে তাই কোনোভাবে যদি ট্রেডিং কোম্পানি বন্ধ হয়ে যায় । এতেও আপনার শেয়ার সম্পূর্ণ সুরক্ষিত অবস্থায় ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর মধ্যে থাকবে।

এছাড়া ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট ছাড়া আপনি কোনোভাবেই শেয়ারকে স্টোর করে রাখতে পারবেন না।

অর্থাৎ শেয়ার মার্কেটে ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট থাকা অত্যাবশ্যক

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এর অসুবিধা

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট এ শেয়ার রাখার জন্য আপনাকে কিছু চার্জ দিতে হয় যখন আপনি শেয়ার বিক্রি করবেন তখন ওই চার্জ কেটে নেয়া হয়।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.