ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করার নিয়ম

ইংরেজি থেকে বাংলায় অনুবাদ করুন খুব সহজেই। কিভাবে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করবেন। তার ৪ টি সবথেকে বেশি ব্যবহৃত পদ্ধতি দেওয়া হলো।

ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করার মোটামুটি ৪ টি সহজ উপায় আছে, যা হলো:

  1. গুগল ট্রান্সলেটর
  2. মাইক্রোসফট ট্রান্সলেটর
  3. অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ
  4. গুগল লেন্স

১. গুগল ট্রান্সলেটর

গুগল ট্রান্সলেটরের সাহায্যে খুব সহজেই ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করতে পারবেন।

গুগল ট্রান্সলেটর ব্যাবহার করার জন্য মোবাইল/কম্পিউটারে ব্রাউজারে গিয়ে “English to Bengali translation” লিখে সার্চ করলেই গুগল ট্রান্সলেটর পেয়ে যাবেন।

এছাড়াও অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের প্লেস্টোরে গিয়ে সার্চ করতে পারেন গুগল ট্রান্সলেটর লিখে।

এই Google Translate অ্যাপটি ইনস্টল করে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করতে পারেন খুব সহজেই।

২. মাইক্রোসফ্ট ট্রান্সলেটর

গুগলের মতো মাইক্রোসফট কোম্পানির ও ট্রান্সলেটর আছে। তাই মাইক্রোসফট ট্রান্সলেটর ব্যাবহার করে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করতে পারবেন।

Bing Microsoft Translator – Translate from English to Bengali” এইটিতে ক্লিক করুন।

এখানে ইংরেজিতে কিছু লিখে বাংলাতে অনুবাদ হয়ে যাবে।

অথবা,গুগল Playstore থেকে মাইক্রোসফট ট্রান্সলেটর অ্যাপ ইনস্টল করতেও পারেন।

মাইক্রোসফট ট্রান্সলেটর অ্যাপটি ইনস্টল করে ব্যাবহার করতে পারেন।

৩. অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ

অ্যান্ড্রয়েড প্লেস্টোরে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদের অ্যাপ আছে। ওই অ্যাপ গুলিকে ব্যাবহার করে খুব সহজেই ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করতে পারবেন।

প্লেস্টোরে গিয়ে শুধু সার্চ করুন “ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ” লিখে।

প্রচুর অ্যাপের লিস্ট পেয়ে যাবেন।

৪. গুগল লেন্স

যদি আপনি কোনো বইয়ের ইংরেজি লেখাকে বাংলাতে অনুবাদ করতে চান তাহলে গুগল লেন্স খুবই কার্যকরী একটি টুল ।

এটি ব্যবহার করে সহজেই যেকোনো বইয়ের মধ্যের ইংরেজি লেখাকে মোবাইলের ক্যামেরার দিয়ে স্ক্যান করতে হবে এবং ঐ লেখার বাংলা অনুবাদ মোবাইলের স্ক্রীনে দেখতে পাবেন । চাইলে কপি করতেও পারবেন ।

Google Lens ইনষ্টল করে Translate অপশনে ক্লিক করলে ইংরেজি ভাষায় লেখার ছবি স্ক্যান করবেন এবং বাংলাতে অনুবাদ করতে পারবেন।


ওপরের চারটি উপায়ে ইংরেজি থেকে বাংলাতে অনুবাদ করতে পারবেন ।

ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করার নিয়ম

নিম্নলিখিত টিপস ইংরেজি থেকে বাংলা ভাষার অনুবাদে কার্যকর হতে পারে:

১. নাম অনুবাদ এড়িয়ে চলুন

আপনি যদি কোনো নথিতে একটি সঠিক নাম খুঁজে পান, তা কোনো ব্যক্তি, কোম্পানি বা প্রতিষ্ঠানের হোক না কেন, এটি অনুবাদ করা এড়িয়ে চলুন কারণ এটি পাঠ্যটির অর্থ হারাতে পারে।

২. প্রতিটি শব্দের আক্ষরিক অনুবাদ নেই

এটা ভাবা অদ্ভুত হতে পারে যে সমস্ত শব্দ আক্ষরিকভাবে অনুবাদ করা যায় না, তবে এটি সত্য। কিছু পদ এবং অভিব্যক্তি শুধুমাত্র কয়েকটি শব্দ ব্যবহার করে অনুবাদ করা যায় না এবং কখনও কখনও একটি দীর্ঘ এবং বিশদ ব্যাখ্যা সহ করা প্রয়োজন।

৩. হাস্যরস এড়িয়ে চলুন

ইংরেজিতে যদি হাস্যরস থাকে তাহলে এড়িয়ে চলুন। কারণ কিছু কিছু ক্ষেত্রে সঠিকভাবে ইংরেজি থেকে বাংলা তে অনুবাদ হয়না।

তাই হাস্যরসের বাক্যগুলির অনুবাদ করার চেষ্টা না করাই ভালো।

৪. বাক্য সংক্ষিপ্ত রাখুন

বর্ধিত বোধগম্যতা এবং সহজতর অনুবাদের জন্য, প্রায় 20 বা তার কম শব্দের জন্য লক্ষ্য করুন। এবং পঠনযোগ্যতা বাড়ান। আমি প্রায়ই নিজেকে জিজ্ঞাসা করি, সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ কি? আমি যা বলতে চাই তা কিভাবে সরলীকৃত করতে পারি? উচ্চস্বরে বাক্য পড়া সেগুলিকে ছোট এবং মিষ্টি রাখতে সাহায্য করে।

৫. যখনই সম্ভব স্ট্যান্ডার্ড ইংরেজি শব্দ ক্রম ব্যবহার করুন

এর অর্থ সাধারণত একটি বিষয়, ক্রিয়া, এবং সংশ্লিষ্ট সংশোধক সহ বস্তু। সঠিক ব্যাকরণগত গঠন এবং যথাযথ বিরাম চিহ্ন নিশ্চিত করুন।

৬. একটি একক ধারণা বোঝাতে শুধুমাত্র একটি শব্দ ব্যবহার করুন

ইংরেজি ভাষাটি যদি আপনি লিখে থাকেন তাহলে ওই লেখাতে একই ধারণা বোঝাতে একটি শব্দকেই ব্যাবহার করুন অন্যান্য জায়গায়। যার ফলে সহজেই অনুবাদের সুবিধা হয়।

৭. তারিখ এবং পরিমাপ

ইংরেজি ভাষায় যদি তারিখ এবং পরিমাপের একক থাকে এগুলির দিকে লক্ষ্য রাখা উচিত।

কারণ বেশিরভাগ সময় এগুলি সঠিকভাবে অনুবাদ হয়না কিংবা ভুল অনুবাদ হয়েও থাকে।

৮. অনুবাদ করা শব্দের তালমিল

ইংরেজি থেকে বাংলা তে অনুবাদ করার পরে শব্দের মধ্যে ঠিকভাবে তালমিল হচ্ছে কিনা এবিষয়ে দেখে নেওয়া উচিত।

কখনো কখনো বাক্যের সমস্ত শব্দ অনুবাদ হয়না। তাই আলাদা করে ওই শব্দকে অনুবাদ করে ওই অনুবাদ করা শব্দ ওই বাক্যের মাঝে বসাতে হয়।


উপসংহার

এগুলির মধ্যে গুগল ট্রান্সলেটর সব থেকে বেশি ব্যাবহার করা হয়।

এটি ব্যাবহার করা সহজ। শুধু আপনার মোবাইলের ব্রাউজারে গিয়ে লিখুন “ ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ” তাহলেই গুগল ট্রান্সলেটর পেয়ে যাবেন।

যদি ইংরেজি থেকে বাংলাতে অনুবাদ হওয়া শব্দের মানে নিয়ে সংশয় থাকে তাহলে আলাদা আলাদা করে ওই শব্দগুলি অনুবাদ করতে পারেন গুগল ট্রান্সলটরে।

আবার কখনো কখনো পুরো বাক্যকে ইংরেজি থেকে বাংলায় অনুবাদ করতে চাইলে বাক্যের সঙ্গে সামঞজস্যপূর্ণ ভাবে অনুবাদ করা ভাষা পাওয়া যায়। যেখানে আলাদা আলাদা করে শব্দের মানে অন্য কিছু হয়ে যায়।

শেয়ার করুন

Leave a Comment

Your email address will not be published.